অর্থগতভাবে শব্দ তিন প্রকার

১. যৌগিক শব্দ :
মিতালী দৌহিত্রকে মধুর (সুরে বলে) গায়কের কর্তব্য বাবুয়ানা বা চিকামারা (নয়)

২. রূঢ়ি শব্দ :
প্রবীণ রাখাল পাঞ্জাবি (পড়ে) হস্তীর (পিঠে বসে) বাঁশি (বাজায় আর) সন্দেশ (খায় আর মনেমনে ) তৈল নিয়ে গবেষণা করে

৩. যোগরূঢ় শব্দ :
রাজপুত্র অসুখ (করেছে তাই) পঙ্কজ, সরোজ ও অন্ন (নিয়ে) সুহৃদ ও পরিবার (বর্গ) মন্দির থেকে জলধি (পর্যন্ত) মহাযাত্রা করবে।